এ সময় কি হয়

changes in the body
আপনার শরীর ও মন
আপনি আপনার পেটের পেশীতে সংকোচন , আঁট হয়ে ওঠা এবং আবার আলগা হয়ে যাওয়া অনুভব করতে পারছেন | আপনার এখন মনে হতে পারে প্রসব সংক্রান্ত পরামর্শ নিতে ডাক্তারের কাছে যাওয়া আপনার পক্ষে খুব কষ্টকর , পরিশ্রম সাপেক্ষ কিন্তু এটা আপনার পক্ষে খুব জরুরি , প্রসব পূর্ব এই পরামর্শ গুলিতে ডাক্তার আপনার রক্ত চাপ এবং মূত্র পরীক্ষা করে দেখবেন , আপনার শিশু কতটা বড় হয়েছে , তার নড়াচড়া স্বাভাবিক ভাবে হচ্ছে কিনা এগুলি সব ভালো করে পরীক্ষা করবেন | আপনার যদি প্রসব নিয়ে কোনো জিজ্ঞাস্য বা উদ্বেগ থাকে সে বিষয় আপনাকে বুঝিয়ে বলে দেবেন | আপনার এ সময় মনে হতে পারে হাসপাতালে যাবার আগে বাড়ি ঠিক মতো গুছিয়ে রেখে যাবেন যাতে শিশুর জন্মের পর বাড়িতে ফিরে কোনো অসুবিধে না হয় | এইরকম মনে করা খুবই যুক্তিযুক্ত কিন্তু এই কাজ করতে গিয়ে বেশি পরিশ্রম যেন না করেন সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন |

গর্ভে সন্তান বৃদ্ধি

এন্টিনেটাল ক্লাস কি - সপ্তাহ ৩৬
কত টা বাড়লো
শিশুটি এখন একটি লেটুস পাতার মতো লম্বা প্রায় ৪৬ সেন্টিমিটার আর ওজনে ২কিলো ৫০০ গ্রাম

শিশুর ক্রমবিকাশ

Pregnancy weekly guide - baby size
বিকাশ
এই সময় শিশুর হজমের প্রয়োজনীয় সব পৌষ্টিক তন্ত্র গুলির বিকাশ সম্পূর্ণ হয়েছে , শিশুটি মায়ের দুধ খেতে এবং হজম করতে সক্ষম , ফুসফুস বাইরের জগতে প্রথম নিঃস্বাস নেওয়ার জন্য তৈরী | শিশুটির শ্রবণ ক্ষমতা এখন আগের চেয়ে প্রখর , সে আপনার গলার আওয়াজ এবং আপনার গলায় গান শুনে তার সুর চিনতে পারছে | ধীরে ধীরে শিশু র বিকাশ সম্পূর্ণ হচ্ছে এবং সে একটি গোলগাল মানব শিশুর পূর্ণ অবয়ব নিচ্ছে |

শরীর আর মনের যত্ন

এন্টিনেটাল ক্লাস কি - সপ্তাহ ৩৬
আপনার শিশু ও নিজের যত্ন নেবেন কিভাবে
  • আপনার ডাক্তারের সাথে নিয়মিত প্রসব পূর্ব পরামর্শ গুলি নিতে ভুলবেন না |
  • তলপেটের ব্যায়াম করুন , হাঁটুর নিচে বালিশ রেখে শোবেন , এতে কোমরে ব্যাথা কম থাকবে , আপনার পশ্চাৎদেশে কোমরে পিঠে হালকা গরম সেঁক দিলে উপকার পাবেন |
  • ঘরের কাজের ফাঁকে ফাঁকে বিশ্রাম নিন , যখনি পারবেন ঘুমিয়ে নিন , এবং শরীরকে প্রসবের জন্য তৈরী রাখুন |
  • প্রসবের চিহ্ন গুলি জেনে রাখুন , সংকোচনের মাত্রা দ্রুততা এবং পুনরাবৃত্তির হার বৃদ্ধি পেলে  প্রসব আসন্ন , যখন সংকোচন আপনি প্রত্যেক পাঁচ মিনিট অন্তর অনুভব করছেন এবং তা প্রায় এক মিনিট পর্যন্ত থাকছে হাসপাতালে যাবার জন্য প্রস্তুত হন , আপনি এখন শিগগিরই শিশুর জন্ম দিতে চলেছেন |

ডাক্তারের পরামর্শ নিন

Pregnancy weekly guide - ask your doctor
ডাক্তার কে করবেন এমন কিছু প্রশ্ন
  1. প্রসবের চিহ্ন বা লক্ষণ গুলি কি ?
  2. আমার শিশু জন্ম নেবার জন্য যে ভাবে থাকার কথা সেই মতো আছে কি ?
  3. শিশুর জন্মের পর আমার কি ভিটামিন K ইনজেকশন নেওয়ার দরকার ?
  4. আমি আমার পেতে সংকোচন বা আঁট ভাব অনুভব করছি |এটা  কি প্রসব আরম্ভের লক্ষণ ?
  5. আমি গর্ভাবস্থায় কি ভাবে ব্যাথা বেদনা কমিয়ে রাখতে পারি?
  6. আমি শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর জন্য কিভাবে প্রস্তুতি নিতে পারি ?

গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়

এন্টিনেটাল ক্লাস কি - সপ্তাহ ৩৬
কর্ম তালিকা
  1. গর্ভাবস্থায় প্রয়োজনীয় ফলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন নিয়মিত নিন |
  2. প্রসব পূর্ব ডাক্তারি পরামর্শ নিতে ভুলবেন না , এই সময় আপনার সাথে আপনার পরিবারের কাউকে নিয়ে যাবেন |
  3. শিশু কে কিভাবে বুকের দুধ দেবেন ডাক্তারের কাছ থেকে জেনে নিন |
  4. আপনার হাসপাতালে নিয়ে যাবার জন্য ব্যাগ গোছানো আছে কিনা দেখে নিন |

আপনার থাকতে পারে এমন কিছু প্রশ্ন

শিশুকে সঠিক ভাবে দুধ খাওয়ানোর জন্য জেনে রাখুন ঠিক কিভাবে শিশুকে রাখবেন যাতে দুধ খেতে শিশুর অসুবিধে না হয় , শিশু পর্যাপ্ত দুধ পাচ্ছে কিনা , দিনে কতবার শিশু কে দুধ খাওয়াতে হবে | প্রসবের পরেই আপনার বুকের দুধ হবে ঘন হালকা হলদেটে রঙের , এটি আপনার শিশুর পক্ষে অত্যন্ত উপকারী , এই দুধ আপনার শিশু কে সব রকম রোগ সংক্রমণ থেকে রক্ষা করবে , এই জন্য ডাক্তারদের মতে শিশু জন্ম নেবার এক ঘন্টা র মধ্যে ই এই দুধ শিশু কে দেওয়া খুব দরকার | বুকের দুধ খাওয়ানোর উপকারিতা সম্পর্কে ডাক্তারের কাছে বিশদ ভাবে জেনে নিন |

প্রসব পূর্ব পাঠ বা অনুশীলন গর্ভবতী মা এবং স্বামী কে গর্ভাবস্থার বিভিন্ন পর্যায় কিভাবে মা ও শিশু র যত্ন করা উচিত কিসে মায়ের স্বাস্থ্য ভালো থাকবে এবং সে একটি সুস্থ শিশুর জন্ম দেবে সে গুলি সম্পর্কে শেখায় | গর্ভাবস্থায় কি কি উদ্বেগ বা চিন্তা নতুন মা বাবা র হতে পারে , এবং তারা কিভাবে একটি সঠিক , সহজ প্রসব ব্যবস্থা র সিদ্ধান্ত নিতে পারে সেটা বলে দিতে পারে | এই অনুশীলন শালা গুলি তে আরো অনেক জুটি যারা নতুন মা বাবা হতে চলেছে তাদের সাথে আলাপ ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ থাকে|

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।