এ সময় কি হয়

changes in the body
আপনার শরীর ও মন
 আপনার শরীর আয়তনে , ওজনে বাড়ছে ! প্রায় দুই কিলো বাড়তি ওজন বহন করে খুব ক্লান্ত হয়ে পড়ছেন | শিশুটির
নড়াচড়া , হাতে পায়ের চালনা , খোঁচা সব খুব স্পস্ট ভাবে বুঝতে পারছেন | আপনি ভালো করে ঘুমোতে পারছেন না , আসন্ন প্রসবের সম্ভাবনায় উৎকণ্ঠা বোধ করছেন ও তাই নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত | শিশু জন্মানোর আগে আপনার কি কি করে রাখা উচিত , কি প্রস্তুতি নেবেন তাই নিয়ে ভাবছেন ! এটা খুবই স্বাভাবিক |

গর্ভে সন্তান বৃদ্ধি

হাসপাতালের ব্যাগ - সপ্তাহ ৩৩
কত টা বাড়লো
এখন শিশুটি মাপে একটি ছোটোখাটো কুমড়োর মতো , (লম্বায় ৪২ সেন্টিমিটার এবং ওজন ১ কিলো ৭৫০ গ্রাম ) |

শিশুর ক্রমবিকাশ

Pregnancy weekly guide - baby size
বিকাশ
 এসময় শিশুটির মস্তিস্ক এবং স্নায়ুতন্ত্র পুরোপুরি তৈরী , শিশুটি এখন রাত ও দিনের পার্থক্য বুঝতে পারে . শরীরের হাড় বিশেষ করে মাথার খুলি শক্ত হয়েছে , প্রত্যেক সপ্তাহে শিশুটি র  এখন প্রায় ২০০ গ্রাম করে ওজন বাড়ছে | শিশুর শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরী হচ্ছে | জন্মানোর পর বাইরের জগতের নানারকম বিজাণু , সংক্রমণ থেকে এটি তাকে সুরক্ষা দেবে |

শরীর আর মনের যত্ন

হাসপাতালের ব্যাগ - সপ্তাহ ৩৩
আপনার শিশু ও নিজের যত্ন নেবেন কিভাবে
  • আপনার চারপাশের স্থান পরিসর বাড়ান , টেবিলে বসার সময় , জনবহুল স্থানে , যানবাহনে ওঠা বা বসার সময় সতর্ক থাকুন , আপনার শরীর আগের চেয়ে আয়তনে অনেক তা বড় , চলাফেরা , বসার সময় আপনার আগের চেয়ে জায়গা বেশি লাগছে , এটা অনেক সময় খেয়াল থাকে না !
  • হাসপাতালে প্রসবের জন্য প্রস্তুতি নিন , ব্যাগ গুছিয়ে রাখুন | সব দরকারি ফোন নম্বর আপনার ফোনে রাখুন , হাসপাতালের নম্বর ঠিকানা , ডাক্তারের নম্বর সব নিজের ফোনে রাখুন |
  • শুতে যাবার অল্প আগে খাবার বা জল খাবেন না বা কোনোরকম পরিশ্রম করবেন না , এক পেয়ালা অল্প গরম দুধ শুতে যাবার আগে খেলে উপকার পাবেন |
  • ক্যালসিয়াম পুষ্ট খাবার যেমন দুধ দই এগুলি খাবেন |
  • দিনে অন্তত দুবার শিশুর নড়াচড়া লক্ষ্য রাখার চেষ্টা করুন |

গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়

Pregnancy weekly guide - ask your doctor
কর্ম তালিকা
  1. আমার শিশু সুস্থ আছে তো ? কোন ভাবে রয়েছে শিশুটি এখন ?
  2. প্রসবের সময় ব্যাথা কমাতে কি কি উপায় আছে ?
  3. আমি দিনে দুবার চা খাই , এতে কোনো ক্ষতি নেই তো ?
  4. আমি অন্য গর্ভবতী মহিলাদের মতো পেটে কোনো সংকোচন বা টান অনুভব করিনা ! এটা কি স্বাভাবিক ?

গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়

হাসপাতালের ব্যাগ - সপ্তাহ ৩৩
কর্ম তালিকা
  1. প্রসব ব্যাথা উঠলে কিভাবে হাসপাতালে যাবেন সেই ব্যবস্থা আগে থেকে করে রাখুন
  2. ডাক্তারের সাথে প্রসব সম্পর্কিত পরামর্শ করতে এপয়েন্টমেন্ট নিয়ে রাখুন
  3. স্বামী এবং বাড়ির লোকজনদের সাথে প্রসব কাল ও শিশুর জন্মের পর কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা নিয়ে আলোচনা করে রাখুন
  4. আপনার মা বা ঘনিষ্ঠ বন্ধুর কাছে আপনার মনের অবস্থা খোলাখুলি আলোচনা করুন |

আপনার থাকতে পারে এমন কিছু প্রশ্ন

নিচে কতগুলি দরকারি জিনিসের লিস্ট দেওয়া হলো যেগুলো হাসপাতালে আপনার সাথে নিলে ভালো -
      1. ডাক্তারে র নোট , ডাক্তারের রিপোর্ট , ওষুধের প্রেসক্রিপশন
      2. শিশুর জন্য জামা , ন্যাপি
      3. প্রসবের সময় পরার জন্য আরামদায়ক , ঢিলেঢালা জামা
      4. অতিরিক্ত জামা , ভিতরের জামা , রাতে পরার জামা
      5. ভারী স্রাবের জন্য স্যানিটারি ন্যাপকিন
      6. তোয়ালে , সাবান , মাজন , চিরুনি ইত্যাদি
      7. পুষ্টিকর হালকা কিছু খাবার
      8. আপনার ওষুধ
বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কোনো কাটা ছেঁড়া করার দরকার হয় না , কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে প্রসব সহজ এবং দ্রুত করতে হলে অল্প চিরে দেওয়া র দরকার হয় , একে বলে এপিসিওটমি episiotomy
বাচ্চার হৃদস্পন্দন কমে গেলে প্রসব তারাতারি ঘটাতে এই পদ্ধতি নেওয়া হয়ে থাকে |

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।